Home / খেলাধুলা / সুপার লিগে বাংলাদেশের ১২০-ইংল্যান্ড ১১৫ পয়েন্ট, ১ ম্যাচই টপকাবে টাইগারদের !

সুপার লিগে বাংলাদেশের ১২০-ইংল্যান্ড ১১৫ পয়েন্ট, ১ ম্যাচই টপকাবে টাইগারদের !

সুপার লিগে বাংলাদেশের ১২০-ইংল্যান্ড ১১৫ পয়েন্ট নিয়ে ২য় স্থানে আছেন আর ১ ম্যাচ জিতলেই টপকাবে টাইগারদের এমন এক সমীকরণে এসে দারিয়েছে ইংল্যান্ড। আইসিসি ওয়ানডে সুপার লিগের সিরিজে নেদারল্যান্ডসের মুখোমুখি হয়েছে ইংল্যান্ড। যেখানে সিরিজের প্রথম ম্যাচে রেকর্ড ৪৯৮ রান করে জয় তুলে নেয় ইংলিশরা। রোববার দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হয় দুই দল।

বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে ৬ উইকেটের বড় ব্যবধানে জিতে ১ ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জয় নিশ্চিত করেছে থ্রি-লায়ন্সরা। এই দুই ম্যাচ জিতে ওয়ানডে সুপার লিগের পয়েন্ট টেবিলে আফগানিস্তানকে টপকে দুইয়ে উঠে এসেছে তারা। এবার বাংলাদেশকে টপকানোর অপেক্ষায় ইংল্যান্ড। সুপার লিগে বাংলাদেশের অবস্থান একদম শীর্ষে। ১৮ ম্যাচ খেলে ১২ জয়ে ১২০ পয়েন্ট টাইগারদের। ১ ম্যাচ কম খেলা ইংলিশদের নামের পাশে এখন ১২০ পয়েন্ট পয়েন্ট।

আগামী বুধবার সিরিজের শেষ ম্যাচে নেদারল্যান্ডসের মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড। এ ম্যাচ জিতে ডাচদের হোয়াইটওয়াশ করতে পারলে বাংলাদেশকে টপকে ১২৫ পয়েন্ট নিয়ে চূড়ায় উঠে যাবে তারা। সুপার লিগে ১২ ম্যাচে ১০০ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে অবস্থান আফগানিস্তানের। আমস্টিলভিনে বৃষ্টি ভেজা মাঠে খেলা শুরু হয় নির্ধারিত সময়ের তিন ঘণ্টা পরে।

৪১ ওভারে নেমে আসা দ্বিতীয় ওয়ানডেতে টস জিতে ব্যাট করতে নামা নেদারল্যান্ডস ৭ উইকেট হারিয়ে স্কোর বোর্ডে ২৩৫ রান জমা করে। তবে শুরুটা ভালো হয়নি তাদের। ১০ ওভারে ৩৬ রানের মধ‍্যে বিদায় নেন টপ অর্ডারের তিন ব‍্যাটসম‍্যান। পরে ডি লিডের সঙ্গে ৬১ ও তেজা নিদামানুরুর সঙ্গে ৭৩ রানের দুটি জুটিতে দলকে এগিয়ে নেন স্কট এডওয়ার্ডস। ৪১ বলে ৩৪ রান করা করে আউট হন ডি লিড।

ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক এডওয়ার্ডস ৩ ছক্কা ও ৪টি চারে ৭৩ বলে ৭৮ রান করে ফেরেন রান আউট হয়ে। ইংল্যান্ডের হয়ে পেসার উইলি ও লেগ স্পিনার আদিল রশিদ নেন ২টি করে উইকেট। ২৩৬ রানের লক্ষ্য টপকাতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে ভালো শুরু পায় ইংল্যান্ড। জেসন রয় আর ফিল সল্টের পার্টনারশিপ থেকে আসে ১৩৯ রান।

আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে দলীয় ১২ ওভারে ব্যক্তিগত পঞ্চাশ স্পর্শ করেন রয়, তার এই ফিফটি আসে ৪৩ বলে। প্রথম ২১ বলে ২২ রান করা সল্ট পরে ঝড় তুলে ফিফটিতে পৌঁছান ৩৭ বলে।

রয় ৭৩ আর সল্ট ৭৭ রানে আউট হলে মরগ্যান ফেরেন শূন্য রানে। আগের ম্যাচে ১৭ বলে ফিফটি করা লিয়াম লিভিংস্টন এদিন ৪ রানের বেশি করতে পারেননি।

পরে মালানের অপরাজিত ৩৬ রানের সঙ্গে মঈন আলির ৪০ বলে ৪২ রানের কল্যাণে ২৯ বল আর ৬ উইকেট হাতে রেখে ম্যাচ জয়ের পাশাপাশি সিরিজ জয় নিশ্চিত করে ইংল্যান্ড। ৩ ম্যাচ সিরিজে ২-০ তে এগিয়ে ইংল্যান্ড বাহেনী ।

Check Also

সর্বকনিষ্ঠ ক্রিকেটার হিসেবে যে সম্মান পেলেন বাবর আজম!

সর্বকনিষ্ঠ ক্রিকেটার হিসেবে পাকিস্তানের তৃতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মানে ভূষিত হচ্ছেন বাবর আজম। দেশটির স্বাধীনতার ৭৫তম …

Leave a Reply

Your email address will not be published.